রকেট

রকেট একাউন্টের পিন ভূলে গেলে করণীয়

রকেট একাউন্টের পিন ভূলে গেলে করণীয়। সুপ্রিয় পাঠক, আমাদের পেইজে আপনাকে স্বাগতম। আশা করি সবাই ভাল আছেন। আজকে আপনাদের জন্য অনেক গুরুত্বপূর্ণ একটি বিষয় নিয়ে হাজির হয়েছি। বর্তমান বাংলাদেশে মোবাইল ব্যাংকিং হচ্ছে টাকা লেনদেনের অন্যতম একটি জনপ্রিয় মাধ্যম। এই মধ্যমে প্রতিদিন হাজার হাজার মানুষ টাকা আদান প্রদান করে থাকেন। আর এই লেনদেন করতে গিয়ে অনেক সময় মানুষকে বিভিন্ন সমস্যায় পড়তে হয় । এর মধ্যে পিন ভুলে যাওয়া হচ্ছে অন্যতম।

তাই আজকে আপনাদের সাথে আলচোনা করব যে রকেট একাউন্টের পিন ভূলে গেলে আপনারা কি করবেন। বর্তমানে অনেকেই ডাচ বাংলা ব্যাংক এর রকেট একাউন্ট ব্যবহার করে থাকেন। আর ব্যাবহার এর ক্ষেত্রে অনেক সময়ই দেখা যায় যে আমরা পিন নাম্বার ভূলে যাই। বা কিছুদিন বায়বহার না করলেউ আমরা একাউন্ট পিন নাম্বার ভূলে যাই।দীর্ঘদিন ব্যবহার না করলে আসলে এটাই স্বাভাবিক। তাই আমাদের এই পোস্ট এর মাধ্যমে আপনাদের এই সমস্যার সমাধান হবে আশা করি। তাহলে চলুন অপেক্ষার অবসান ঘটিয়ে শুরু করা যাক আজকের টপিক।

রকেট পিন রিসেট করতে কি কি লাগে?

আপনি কি রকেট পিন রিসেট করতে চাচ্ছেন! তাহলে আপনাকে অবশ্যই কিছু প্রয়োজনীয় ডকুমেন্টস্‌ সংগ্রহ করতে হবে। কারন সঠিক তথ্য ছাড়া আপনি কখনই আপনার রকেট একাউন্টের পিন পুনরুদ্ধার করতে পারবেন না। আপনি রকেট একাউন্ট খোলার সময় যে তথ্যগুলো দিয়েছিলেন, ঠিক সেই তথ্যগুলোই আপনার প্রথমেই কালেক্ট করে নিতে হবে। তাই আপনি চেস্টা করবেন যেনো সব তথ্য আপনার সাথেই থাকে। তথ্যগুলো হল;

প্রথমেই এন আইডি কার্ড লাগবে। যার আইডি কার্ড তাকে স্ব-শরীরে উপস্থিত থাকতে হবে। সর্বশেষ লেনদেনের তথ্য জানা থাকতে হবে। যে সিম দিয়ে একাউন্ট খোলা হয়েছে সেটি লাগবে সাথে একটি মোবাইল ফোন।

রকেট পিন রিসেট করার নিয়ম;

আপনি যদি রকেট একাউন্টের পিন নাম্বার ভূলে যান তাহলে আপনাকে অবশ্যই পিন রিসেট করার মাধ্যমে পুনরায় আপনার একাউন্ট ব্যবহার উপযোগী করে তুলতে পারেন। তাই পিন রিসেট করতে হলে আপনাকে যা যা করতে হবে সেটি হল।
আপনি দুইভাবে রকেট পিন রিসেট করতে পারেন। যেমনঃ

১.সরাসরি 16216 নাম্বারে ডায়াল করে;
আপনি যদি ঘরে বসেই আপনার রকেট পিন রিসেট করতে চান তাহলে উপরোক্ত নাম্বারে ডায়াল করুন। তবে হ্যা, অবশ্যই আমরা যে প্রয়োজনীয় তথ্যগুলোর কথা উল্লেখ করেছি সেগুলো সাথে রেখেই ডায়াল করতে হবে । এরপর কাস্টমার কেয়ার এর লোক আপনার কাছে যে তথ্যগুলো চাইবে সেগুলি দিয়ে আপনি সহজেই নতুন পিন নাম্বার পেতে পারেন ।

২.নিকটস্থ কোন ডাচ বাংলা অফিসে গিয়ে;
আপনি যদি চান যে সরাসরি তাদের সাথে সাক্ষাতের মাধ্যমে আপনার একাউন্টের পিন রিসেট করবেন। তাহলে প্রয়জনীয় সব তথ্য নিন এবং চলে যান নিকটস্থ কোন ডাচ বাংলা ব্যাংক এর কাস্টমার কেয়ার এ। সেখানে আপনি সহজেই আপনার পিন রিসেট সম্পন্ন করতে পারবেন।

এভাবে আপনি চাইলে সহজেই আপনার পিন রিসেট করতে পারবেন। তবে রিসেট প্রক্রিয়া সম্পন্ন করার পর তারা যে পিন নাম্বার আপনাকে দিবে সেটি আপনি পরবর্তীতে নিজের সুবিধামত পরিবর্তন করতে পারবেন।

Back to top button